বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১১:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শেরপুরে ডিএসএ’র দাবা প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ছাত্রলীগ থেকে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হলেন তরুণ সমাজসেবক কনক ঐতিহাসিক ভোট পেয়ে নকলা উপজেলা পরিষদের নতুন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হলেন লাকী নকলা উপজেলা পরিষদের নতুন চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম সোহাগ নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদে নির্বাচিত হলেন যাঁরা মেঘলা দিনে নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সোহাগ, ভাইস চেয়ারম্যান পদে কনক ও লাকী নির্বাচিত নকলার ৭৯ কেন্দ্রে নির্বাচনি সরঞ্জাম পৌঁছেছে ব্যালট পেপার যাবে সকালে নকলায় নির্বাচনি প্রচারনা বন্ধ, নিয়ন্ত্রিত যানবাহন ২১ মে সাধারণ ছুটি ঘোষণা নকলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে একগুচ্ছ পরিকল্পনা ঘোষণা দিলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহাগ

বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান’র মৃত্যুবর্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা দোয়া মাহফিল

রিপোর্টারঃ
  • প্রকাশের সময় | শুক্রবার, ২৫ আগস্ট, ২০২৩
  • ৬০ বার পঠিত

শেরপুর জেলার নকলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান-এঁর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার বিকেলে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স মিলনায়তনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আম্বিয়া খাতুনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ।

এছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মরহুম মোস্তাফিজুর রহমান-এঁর জীবদ্দশায় কৃতিত্ব ও তাঁর জীবনাদর্শের উপর বিস্তারিত আলোচনা করে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ফেরদৌস রহমান জুয়েল, অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম দুলাল, বাবু ইন্দ্রজিৎ কুমার ধর সুভাষ ও অধ্যক্ষ আব্দুল খালেক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র হাফিজুর রহমান লিটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান ও আনিসুর রহমান সুজা, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুল আলম আজাদ আলমগীর, দপ্তর সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল হক হীরা, ছামিউল হক মুক্তা ও আব্দুর রশিদ সরকার, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ.কে.এম মাহবুবুল আলম সোহাগ, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল সূত্র ধর, কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক মন্নাফ খান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রহিম মোস্তফাসহ অনেকে।

এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আঞ্জুমান আরা বেগম রুমী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মো. শহিদুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক গোলাম হাফিজ সোহল, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক মুনসুর আলী, সহ-দপ্তর সম্পাদক এফ.এম কামরুল আলম রঞ্জুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ; উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোশাররফ হোসেন সরকার বাবুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, উপজেলা মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক হেলাল উদ্দিন ফকিরসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, উপজেলা যুবলীগের সদস্য আকরাম হোসেন ও আদিল আহমেদ পল্লবসহ অন্যান্যরা, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক আবু হামযা কনকসহ বঙ্গবন্ধু শিক্ষা-গবেষণা পরিষদ নকলা উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মোশারফ হোসাইন, নকলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন সরকার বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলে রাব্বী রাজন ও নূর হোসেন, দপ্তর সম্পাদক সেলিম রেজাসহ অন্যান্যরা এবং উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মৎস্যজীবী লীগ, শ্রমিক লীগ, কৃষক লীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান ২০২১ সালের ২৩ আগস্ট বিকাল ৫:২০ মিনিটের সময় শেরপুর সদর হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। তিনি স্ত্রীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ২৪ আগস্ট মঙ্গলবার সকাল ১১টার সময় নকলা সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পুলিশের একটি চৌকস দল গার্ড অব অনার প্রদান করেন। পরে কায়দা বাজারদী গোরস্থানে তাঁর মরদেহ সমাহিত করা হয়।

বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান হাজী জালমামুদ কলেজের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দর্শন বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন। তিনি ২০১৫ সালের এপ্রিল থেকে নকলা উপজেলা আওয়ামী লীগের আমৃত্যু সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে নকলা থানা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক নির্বাচিত হয়ে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে ১১নং সেক্টরের অধীনে সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে সক্রিয় ছিলেন। ১৯৭২ সালে নকলা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি, ১৯৭৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রতিষ্ঠানিক লেখাপড়া শেষে ১৯৮৪ সালে নকলা হাজী জালমামুদ কলেজে দর্শন বিভাগে অধ্যাপনা শুরু করেন। ২০০৯ সালে তিনি অবসর গ্রহণ করেন। নির্লোভ ওই নেতার শূণ্যতা কোন ক্ষেত্রেই আজো পুরণ করা সম্ভব হয়নি বলে অনেকে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরো সংবাদ
©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সমকালীন বাংলা
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102
error: ভাই, খবর কপি না করে, নিজে লিখতে অভ্যাস করুন।