বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১২:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
নকলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ নকলা প্রেসক্লাবের সভাপতির সাথে সাংবাদিকদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় নকলায় কৃষকের মৃত্যু নিয়ে ধ্রুমজাল ! নকলায় ময়মনসিংহ যুবসমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ কবিতা :: ‘কোরবানির গরুর হাট’ নকলা প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে সাংবাদিকদের ঈদ উপহার প্রদান নকলায় ১টি আগাম জামাতসহ ১০২ ময়দানে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে নকলায় কৃষকের মাঝে সার বীজ বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধন করলেন সংসদ উপনেতা মতিয়া চৌধুরী নকলার ১৭৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা পেলো সংসদ উপনেতা মতিয়া চৌধুরী’র ঈদ উপহার নকলায় গাছের সাথে শত্রুতা! সুষ্ঠু বিচার পাওয়া নিয়ে সংশয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার

শেরপুরের ৩ উপজেলাকে ২২ মার্চ ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করা হবে

মো. মোশারফ হোসাইন:
  • প্রকাশের সময় | মঙ্গলবার, ২১ মার্চ, ২০২৩
  • ৪১ বার পঠিত

শেরপুরের ৩ উপজেলাকে আগামী ২২ মার্চ (বুধবার) ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করা হবে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়াল মাধ্যমে নকলা, ঝিনাইগাতী ও নালিতাবাড়ী উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিবেন।

এ উপলক্ষে সোমবার (২০ মার্চ) বিকেলে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘দেশের একজন মানুষও ভূমিহীন ও গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-এঁর এই ঘোষণা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এই প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়। প্রেস ব্রিফিংয়ে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক সাহেলা আক্তার।

এই প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয় যে, আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আর্থিক সহযোগীতায় শেরপুরে জেলার জন্য ৪র্থ পর্যায়ে ৯১৯টি ঘর নির্মাণের বরাদ্দ পাওয়া যায়। এরমধ্যে নালিতাবাড়ী উপজেলার জন্য ছিলো ৪৭৫টি, নকলায় ১৫০টি ও ঝিনাইগাতী উপজেলার জন্য ৭৫টি। এরইমধ্যে এই তিন উপজেলার ঘর নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হয়েছে। বাকি শেরপুর সদর ও শ্রীবরদী উপজেলায় নির্মাণ কাজ চলমান আছে। খুবদ্রুত সময়ের মধ্যেই ওই দুই উপজেলার ঘর নির্মাণ কাজ শেষ হবে। জেলা প্রশাসনের সরাসরি তত্বাবধানে জেলা ও সংশ্লিষ্ট উপজেলায় গঠিত উপকমিটির মাধ্যমে উপজেলা প্রশাসন এসব ঘর নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। প্রতিটি ঘরের জন্য ২ লক্ষ ৮৪ হাজার ৫০০ টাকা করে নির্মাণ ব্যয় করা হচ্ছে। আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় ১ম, ২য়, ৩য় ও ৪র্থ পর্যায় মিলে জেলার ভূমিহীন, গৃহহীন ও আশ্রয়হীন তৃণমূল-প্রান্তিক পর্যায়ের মোট ১ হাজার ৮৭০টি দরিদ্র পরিবার পুনর্বাসিত হচ্ছে বলেও এ ব্রিফিংয়ে উপস্থিত সকলকে জানানো হয়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা প্রশাসক সাহেলা আক্তার ছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাইয়েদ এ.জেড মোরশেদ আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মনিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছানুয়ার হোসেন ছানু, সাবেক সহ-সভাপতি ফখরুল মজিদ খোকন, নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মো. বোরহান উদ্দিন, নকলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ, শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহনাজ ফেরদৌস, নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খ্রিস্টফার হিমেল রিছিল, শেরপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম আধার, সিনিয়র সাংবাদিক দেবাশীষ ভট্টাচার্য ও দেবাশীষ সাহা রায় প্রমুখ।

এসময় সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, ঝিনাইগাতী পরিষদের উপজেলা চেয়ারম্যান এস.এম আব্দুল্লাহেল ওয়ারেজ নাইম, নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোকছেদুর রহমান লেবু, শ্রীবরদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ.ডি.এম শহীদুল ইসলাম, ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক আল মাসুদ, নালিতাবাড়ী পৌরসভার মেয়র আবু বক্কর সিদ্দিকসহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা, শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন ও নকলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন সরকার বাবুসহ জেলা ও উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যমের সংবাদকর্মীগন উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরো সংবাদ
©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সমকালীন বাংলা
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102
error: ভাই, খবর কপি না করে, নিজে লিখতে অভ্যাস করুন।