বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৩:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শেরপুরে ডিএসএ’র দাবা প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ছাত্রলীগ থেকে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হলেন তরুণ সমাজসেবক কনক ঐতিহাসিক ভোট পেয়ে নকলা উপজেলা পরিষদের নতুন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হলেন লাকী নকলা উপজেলা পরিষদের নতুন চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম সোহাগ নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদে নির্বাচিত হলেন যাঁরা মেঘলা দিনে নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সোহাগ, ভাইস চেয়ারম্যান পদে কনক ও লাকী নির্বাচিত নকলার ৭৯ কেন্দ্রে নির্বাচনি সরঞ্জাম পৌঁছেছে ব্যালট পেপার যাবে সকালে নকলায় নির্বাচনি প্রচারনা বন্ধ, নিয়ন্ত্রিত যানবাহন ২১ মে সাধারণ ছুটি ঘোষণা নকলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে একগুচ্ছ পরিকল্পনা ঘোষণা দিলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহাগ

বিশ্ব কবিতা দিবস উপলক্ষ্যে নকলা প্রেসক্লাবে কবিতা পাঠের আসর ও আলোচনা সভা

নিজস্ব প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময় | মঙ্গলবার, ২১ মার্চ, ২০২৩
  • ২৭৬ বার পঠিত

আজ ২১ মার্চ, বিশ্ব কবিতা দিবস। এই দিবস উপলক্ষে সকল কবিদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাতে শেরপুরের নকলা প্রেসক্লাবে কবিতা পাঠের আসর ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) রাত ৮টায় প্রেসক্লাবের অফিস কক্ষে ক্লাবটির সভাপতি মো. মোশারফ হোসাইন-এর সভাপতিত্বে কবিতা পাঠের আসর ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় কবিতা পাঠের আসরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কবি কৃষিবিদ আব্দুর রউফ এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আবু ইলিয়াছ সাদ্দাম। এই দুইজন দেশ-বিদেশের খ্যাতিমান কবিদের বাংলা ভাষায় লেখা বিভিন্ন কবিতা পাঠ করেন এবং সকল কবিদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

কবিতা পাঠের আসর শেষে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মোশারফ হোসাইন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল-আমিনসহ ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সদস্য তরুণ লেখক সিমানুর রহমান সুখন ও রাইসুল ইসলাম রিফাত প্রমুখ। এ আলোচনা সভায় নকলা প্রেসক্লাবের অনেকে ভার্চুয়ালী অংশ গ্রহন করেন। বক্তারা জানান, ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো ২১ মার্চকে বিশ্ব কবিতা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। এই দিবস পালনের উদ্দেশ্য হল- বিশ্বব্যাপী কবিতা পাঠ, রচনা, প্রকাশনা ও আদর্শ শিক্ষাকে দ্রুত জনগনের কাছে পৌঁছেদিতে সংশ্লিষ্ট সকলকে উৎসাহিত করা।

ইউনেস্কোর অধিবেশনে এই দিবস ঘোষণা করার সময় বলা হয়েছিল- ‘এই দিবস বিভিন্ন জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক কবিতা আন্দোলনগুলোকে নতুন করে স্বীকৃতি ও গতিদান করবে।’ তাই সাহিত্যকে গতিশীল করতে হলে শিক্ষিত সমাজকে অন্তত প্রতি মাসে একবার করে হলেও কবিতা পাঠ ও সাহিত্য চর্চার আয়োজন করা উচিত। বিশেষ করে নতুন বা উদীয়মান কবি তথা তরুণ লেখকদেরকে উৎসাহিত করতে কবিতা পাঠের এই আয়োজনকে নিয়মিত করা জরুরি বলে তারা মনে করেন। এসময় প্রেসক্লাবের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও সদস্য সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরো সংবাদ
©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সমকালীন বাংলা
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102
error: ভাই, খবর কপি না করে, নিজে লিখতে অভ্যাস করুন।