বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৩:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শেরপুরে ডিএসএ’র দাবা প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ছাত্রলীগ থেকে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হলেন তরুণ সমাজসেবক কনক ঐতিহাসিক ভোট পেয়ে নকলা উপজেলা পরিষদের নতুন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হলেন লাকী নকলা উপজেলা পরিষদের নতুন চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম সোহাগ নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদে নির্বাচিত হলেন যাঁরা মেঘলা দিনে নকলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সোহাগ, ভাইস চেয়ারম্যান পদে কনক ও লাকী নির্বাচিত নকলার ৭৯ কেন্দ্রে নির্বাচনি সরঞ্জাম পৌঁছেছে ব্যালট পেপার যাবে সকালে নকলায় নির্বাচনি প্রচারনা বন্ধ, নিয়ন্ত্রিত যানবাহন ২১ মে সাধারণ ছুটি ঘোষণা নকলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে একগুচ্ছ পরিকল্পনা ঘোষণা দিলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহাগ

নালিতাবাড়ীতে দিনব্যাপী ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কৃষকদের প্রশিক্ষণ ও বীজ সহায়তা প্রদান

নিজস্ব প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময় | বুধবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ২৭১ বার পঠিত

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলে ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় দিনব্যাপী ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ননগ্রুপ কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও প্রশিক্ষণার্থী কৃষকদের মাঝে বিভিন্ন শাক-সবজীর বীজ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

এ উপলক্ষে বুধবার (৮ ডিসেম্বর) সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক নিরাপদ শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করে প্রশিক্ষণ ও বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন কার হয়।

উপজেলা কৃষক প্রশিক্ষণ কক্ষে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরাধীন নালিতাবাড়ী উপজেলা কৃষি অফিসের আয়োজনে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার বিভিন্ন এলাকার শুধুমাত্র ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কৃষক-কৃষাণীরা দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ গ্রহন করেন।

উপজেলাা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. আলমগীর কবীর-এর সভাপতিত্বে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা ও বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেরপুর খামারবাড়ির উপপরিচালক কৃষিবিদ ড. মোহিত কুমার দে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলে ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক কৃষিবিদ মোস্তফা কামাল ও সিনিয়র মনিটরিং অফিসার কৃষিবিদ মোহাম্মদ নাজমুল হাসান।

এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কৃষিবিদ ওয়াসিফ রহমানসহ নালিতাবাড়ী উপজেলা কৃষি অফিসে কর্মরত কর্মকর্তাগন, উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর প্রশিক্ষাণার্থী কৃষক-কৃষাণীরা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলে ফসলের নিবিড়তা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেন। তাছাড়া এ অঞ্চলে কৃষিপণ্য উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষক-কৃষাণীদের প্রয়োজনীয় ও সার্বিক পরামর্শ প্রদানসহ কৃষক ও কৃষি অফিসারদের করণিয় বিষয়ক আলোচনাও করেন তাঁরা।

প্রশিক্ষণ শেষে প্রশিক্ষণার্থী প্রতি কৃষক-কৃষাণীর মাঝে অন্তত ৭ প্রকার শাক-সবজীর বীজ প্রদান করা হয়। এ প্রশিক্ষণে অর্জিত জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কৃষক-কৃষাণীরা একই জমিকে পুনঃপুন ব্যবহারের জন্য স্বল্প জীবনকালীন জাতের ফসল চাষ করার প্রতি উদ্বুদ্ধ হবেন বলে কৃষি কর্মকর্তারা আশাব্যক্ত করেন।

নিউজটি শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরো সংবাদ
©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সমকালীন বাংলা
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102
error: ভাই, খবর কপি না করে, নিজে লিখতে অভ্যাস করুন।