বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১২:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
নকলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ নকলা প্রেসক্লাবের সভাপতির সাথে সাংবাদিকদের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় নকলায় কৃষকের মৃত্যু নিয়ে ধ্রুমজাল ! নকলায় ময়মনসিংহ যুবসমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ কবিতা :: ‘কোরবানির গরুর হাট’ নকলা প্রেসক্লাব’র উদ্যোগে সাংবাদিকদের ঈদ উপহার প্রদান নকলায় ১টি আগাম জামাতসহ ১০২ ময়দানে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে নকলায় কৃষকের মাঝে সার বীজ বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধন করলেন সংসদ উপনেতা মতিয়া চৌধুরী নকলার ১৭৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা পেলো সংসদ উপনেতা মতিয়া চৌধুরী’র ঈদ উপহার নকলায় গাছের সাথে শত্রুতা! সুষ্ঠু বিচার পাওয়া নিয়ে সংশয়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার

শেরপুরে এনএসআই’র তথ্যের ভিত্তিতে ভেজাল গুড়ের কারখানায় অভিযান : ২ জনকে জেল জরিমানা

এম.এম হোসাইন, নিজস্ব প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময় | বুধবার, ৪ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৫৯ বার পঠিত

শেরপুরে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) এর তথ্যের ভিত্তিতে কাপড়ের রং ও ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ মিশ্রিত গুড় তৈরির কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালিয়ে ২ জনকে অর্থদন্ড ও ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।

জরিমানা অনাদায়ে আরো এক মাসের কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করা হয়। দন্ডাদেশ প্রাপ্তরা হলেন সদর উপজেলার সাহাব্দীরচর দক্ষিণপাড়া গ্রামের ইমান আলীর ছেলে আব্বাস আলী ও হাতেম আলীর ছেলে সাজল মিয়া।

বুধবার (৪ আগস্ট) দুপুরে এনএসআই শেরপুর জেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তার নেতৃত্বে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সঙ্গীয় ফোর্সসহ দুই মালিক আব্বাস আলী (৪৫) কে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও সাজল মিয়া (৪৭) কে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া প্রত্যেককে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং অনাদায়ে আরো ১ মাসের কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী বিচারক জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসিফ রহমান।

এসময় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের জেলা স্বাস্থ্য পরিদর্শক মুন্তাসির বিল্লাহসহ সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স, এনএসআই এর কর্মর্তাগন ও বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকগন উপস্থিত ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪১ ধারায় ভেজাল খাদ্য তৈরি করার অপরাধে তাদেরকে উক্ত দন্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া কারখানা থেকে ভেজাল গুড় তৈরির উপকরণ পোকাযুক্ত পঁচা চিটা গুড় (লালি), হাইডোজ, ফিটকিরি, কাপড়ের রং ও রাসায়নিক পদার্থ, ১০০ বস্তা চিনি ও ১৪ বস্তা ময়দা উদ্ধার করা হয় এবং তৈরি করা বিপুল পরিমাণ ভেজাল গুড় ডোবার পানিতে ফেলে ধ্বংস করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী বিচারক জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রে আসিফ রহমান জানান, জনস্বার্থে এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরো সংবাদ
©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সমকালীন বাংলা
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102
error: ভাই, খবর কপি না করে, নিজে লিখতে অভ্যাস করুন।