শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১০:১১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
নকলায় বৈষম্যমূলক কোটা সংস্কার দাবিতে ও শিক্ষার্থীর ওপর বর্বর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন নকলায় উন্নয়ন সহায়তা কর্মসূচির টিউবওয়েল বিতরণ মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী শ্লোগানের প্রতিবাদে নকলায় মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন এবার শেরপুরকে ঘিরে তৈরি হচ্ছে ইত্যাদি অনুষ্ঠান : সকল কাজ প্রায় শেষ বিভাগীয় কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় নকলায় “মাদককে না বলুন” কর্মসূচি বাস্তবায়নে শপথ গ্রহণ নকলায় জঙ্গিবাদ ও মাদকাসক্তি প্রতিরোধে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান নকলায় শিশু ও নারী নির্যাতন বিরোধী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান নকলায় যুবদের হুইসেলব্লোয়ার হিসেবে অন্তর্ভূক্তিকরণ সভা নকলার ইউএনও শুদ্ধাচার পুরস্কার পাওয়ায় যুবফোরাম কর্তৃক সম্মাননা স্মারক প্রদান

শেরপুরে কোভিড-১৯’র প্রতিষেধক টিকাদান কেন্দ্রের উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিনিধি:
  • প্রকাশের সময় | রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৪৫ বার পঠিত

সারা দেশের ন্যায় শেরপুর জেলার সদর উপজেলাসহ জেলার ৫টি উপজেলার স্বাস্থ্য বিভাগের আয়োজনে করোনা ভাইরাস (কোভিট-১৯) এর প্রতিষেধক টিকাদান কেন্দ্রের উদ্বোধন করা হয়েছে। ৭ ফেব্রুয়ারি রবিবার সকাল ১০ টায় মাননীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশব্যাপী একযুগে এ কর্মসূচি উদ্বোধনের পরে প্রতিটি জেলা-উপজেলায় টিকাদান কর্মসূচি শুরু করা হয়।

এর অংশ হিসেবে শেরপুর জেলার নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোভিড-১৯ এর টিকাদান কেন্দ্রের শুভ উদ্বোধন করা হয়। এ উপলক্ষে এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জাহিদুর রহমান-এর সভাপতিত্বে ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সৌরভ কুমার সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ্ মো. বোরহান উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নকলা পৌরসভার মেয়র মো. হাফিজুর রহমান লিটন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা, নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুসফিকুর রহমান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবুল মনসুর।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ আলম মঞ্জু, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডেন্টাল সার্জন ডা. নাজমুস সাকিব, স্বাস্থ্য পরিদর্শক মো. রফিকুল ইসলাম ও ফরমান আলী, উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার (এসএসিএমও) মো. মোস্তাফিজুর রহমান, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ইপিআই) আব্দুর রহিম, মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট আবু কাউসার বিদ্যুৎ, সেনেটারী ইন্সপেক্টর হাসান ফেরদৌস আলম, নকলা ইয়্যুথ রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি মো. নূর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. ফজলে রাব্বী রাজন, সহসভাপতি নাহিদুল ইসলাম রিজন, শিক্ষা ও মানব সম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদকসহ স্থানীয় সাংবাদিকগন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত অন্যান্য চিকিৎসক, নার্স, স্বেচ্ছাসেবক, রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিসংখ্যান অফিসার সৈয়দা বেগম লবিবা জানান, উপজেলার ২ শতাধিক আগ্রহী কোভিড-১৯ এর টিকা পেতে অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করেছেন। প্রথম দিন রবিবারে শুধুমাত্র অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশনকৃত ১০ জনকে কোভিড-১৯ এর টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে। টিকাদান কর্মসূচি সফলতার সহিত সম্পন্ন করতে উপজেলার ৪৮ জন স্বেচ্ছাসেবী কর্মী ও ২৪ জন টীকাদান কর্মীকে এরই মধ্যে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা আলাদা বুথ, বেড, অবজারভেশন রুমসহ প্রয়োজনীয় সব কিছু প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা জানান, ২৫৩ টি অ্যাম্পুলের মাধ্যমে উপজেলার মোট ২ হাজার ৫৩০ জনকে কোভিট-১৯ এর প্রতিষেধক টিকা দেওয়া হবে। এ কার্যক্রম প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৩ টা পযর্ন্ত চলবে। নকলা উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদে ৯টি ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি টিকাদান কেন্দ্র থেকে এসকল টিকা দেওয়া হবে। তিনি আরও জানান, প্রতিটি টিকাদান কেন্দ্রে ৬ সদস্যের একটি দল কাজ করছেন। এর মধ্যে ২ জন টিকাদান কর্মী ও ৪ জন স্বেচ্ছাসেবী রয়েছেন। প্রথম পর্যায়ে ভ্যাক্সিন পাবেন স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, মিডিয়াকর্মীসহ বিভিন্ন অধিদপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ। জেলা সদরে ৮টি ভ্যাক্সিন টিম ও জেলার অন্য ৪টি উপজেলায় ২টি করে ভ্যাক্সিন টিম কাজ করবে। তবে আপাতত অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন ছাড়া কাউকে এই টিকা দেওয়া হচ্ছেনা বা দেওয়া হবেনা বলে তিনি জানান।

এদিকে শেরপুর জেলা হাসপাতালে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা আতিউর রহমান আতিক এমপি। এসময় জেলা প্রশাসক আনার কলি মাহবুব, পুলিশ সুপার হাসান নাহিদ চৌধুরী, শেরপুর সিভিল সার্জন ডা. একেএম আনওয়ারুর রউফ পৌরসভার মেয়র গোলাম কিবরিয়া লিটন, সদর উপজেলা স্থাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. মোবারক হোসেনসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

শেরপুর জেলা হাসপাতালের টিকাদান কেন্দ্রে সর্বপ্রথম টিকা গ্রহন করেন স্থানীয় সরকার বিভাগ শেরপুরের উপপরিচালক এটিএম জিয়াউল ইসলাম। সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, জেলার ১,৬০০ জন আগ্রহী টিকা নেওয়ার জন্য অনলাইন রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। এদেরমধ্যে আজ রবিবার ২০০ জনকে টিকা দেয়া হবে। প্রথম ধাপে যেসকল ভ্যাক্সিন এসেছে, চলতি বছরের ১৬ এপ্রিলে সেসকল ভ্যাক্সিনের মেয়াদ উত্তীর্ণ হবে। শেরপুর জেলার জন্য ৩৬ হাজার ডোজ করোনা ভাইরাস (কোভিট-১৯) এর ভ্যাক্সিন এসেছে। যদিও জেলায় প্রায় ৪০ হাজার ডোজের চাহিদা রয়েছে। এরইমধ্যে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তরফ থেকে ডাক্তার, ৩৬ জন নার্স ও ৭২ স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত করা হয়েছে।

শেরপুর সদর উপজেলাসহ নকলা, নালিতাবাড়ী, শ্রীবরদী ও ঝিনাইগাতী উপজেলা স্থাস্থ্য কমপ্লেক্সে একযোগে কোভিট-১৯ ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম শুরু হয়। করোনা ভাইরা (কোভট-১৯) এর প্রতিষেধক টিকা পেতে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য নির্দিষ্ট www.surokkha.gov.bd এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আগ্রহীদের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে স্বাস্থ্য বিভাগের জেলা ও উপজেলা হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের বড়াতে সকলকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুনঃ

এই জাতীয় আরো সংবাদ
©২০২০ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সমকালীন বাংলা
Develop By : BDiTZone.com
themesba-lates1749691102
error: ভাই, খবর কপি না করে, নিজে লিখতে অভ্যাস করুন।